পিছিয়ে যাওয়া অলিম্পিকে বয়স সীমা বাড়ানোর আহ্বান অস্ট্রেলিয়ার

248

সিডনি, ২৭ মার্চ, ২০২০ (বাসস/এএফপি) : প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসের কারনে এক বছর পিছিয়েছে ক্রীড়াঙ্গনের সবচেয়ে বড় ইভেন্ট অলিম্পিক। গেমসটি পিছিয়ে দেয়ায় পুরুষ ফুটবলে বয়স সীমা বাড়ানোর আহ্বান জানিয়েছে ফুটবল ফেডারেশন অব অস্ট্রেলিয়া (এফএফএ)।
বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে এফএফএ জানায়, স্থগিত হয়ে যাওয়া টোকিও অলিম্পিকে অনূর্ধ্ব-২৩ পুরুষ ফুটবলের বয়স সীমা অনূর্ধ্ব-২৪ করার আহবান জানাচ্ছি, যাতে এবারের অনূর্ধ্ব-২৩এর সকল খেলোয়াড় প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে পারে। কারন এক বছর পর তাদের বয়স ২৪ হবে।
এফএফএ’র প্রধান নির্বাহি জেমস জনসন বলেন, ‘ এক বছর পিছিয়ে যাওয়ায় বয়সের সামঞ্জস্য করতে টোকিও অলিম্পিক গেমসে পুরুষদের টুর্নামেন্টটি অনূর্ধ্ব-২৪ করার জন্য আমরা ফিফা ও এশিয়ান ফুটবল কনফেডারেশনের (এএফসি) সাথে খোলাখুলিভাবে আলোচনা করতে চাই।’
জাপানের টোকিওতে আগামী ২৪ জুলাই শুরু হওযার কথা ছিল অলিম্পিক গেমসের। কিন্তু করোনাভাইরাসের কারনে এক বছরের জন্য স্থগিত করা হয়েছে। এক বছর পিছিয়ে যাওয়ায় উদ্বেগ তৈরি হয়েছে। কিছু খেলোয়াড় বয়সের সীমাবদ্ধতার কারনে আগামী অলিম্পিকে অংশ নিতে পারবে না বা অনেকেই ফর্ম ও ফিটনেস হারাতে পারে।
বিবৃতিতে জনসন আরও বলেন, ‘টুর্নামেন্টের ফর্মেট অনূর্ধ্ব-২৪ করা হলে যে সব খেলোয়াড় এ বছর গেমসে দেশের অংশ গ্রহনে ভুমিকা পালন করেছেন তাদের স্বপ্ন পুরন হবে এবং একজন অলিম্পিয়ান হতে পারবে।’
এ বছরের অলিম্পিকের জন্য অস্ট্রেলিয়ার মত অনেক দলই নিজেদের তৈরি করেছিলো। ২০১৮ সালে অস্ট্রেলিয়া অনূর্ধ্ব-২৩ পুরুষ দলের দায়িত্ব নেন গ্রাহাম আরনল্ড।