বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে কল-কারখানা পর্যায়ে ‘গ্রিন ফ্যাক্টরি অ্যাওয়ার্ড’ দিবে শ্রম মন্ত্রণালয়

412

ঢাকা, ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ (বাসস) : জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে কল-কারখানা পর্যায়ে ‘গ্রিন ফ্যাক্টরি অ্যাওয়ার্ড’ প্রদান করবে শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়। আগামী ২৮ এপ্রিল জাতীয় পেশাগত স্বাস্থ্য ও সেইফটি দিবসে এ অ্যাওয়ার্ড প্রদান করা হবে।
আজ সচিবালয়ে শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে সচিব কে এম আলী আজম এর সভাপতিত্বে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন অগ্রগতি সভায় এ তথ্য জানানো হয়।
জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী ‘মুজিববর্ষ’ যথাযোগ্য মর্যাদায় উদযাপনে শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় বছরব্যাপী বিস্তারিত কর্মসূচি গ্রহণ করেছে।
মুজিব বর্ষের প্রথম দিন জাতির পিতার জন্মদিন ১৭ মার্চ সকালে শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান শ্রম ভবনে এক’শ পাউন্ড ওজনের কেক কেটে দিনের কর্মসূচি উদ্বোধন করবেন। দুপুরে ‘জাতীয় শিশু দিবস’ উপলক্ষ্যে আয়োজিত চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার বিজয়ী শিশুদের মাঝে পুরস্কার প্রদান করা হবে। এদিন দুপুরে এক’শ এতিম শিশুকে খাওয়ানোর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে এবং বিকেলে বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনে তাঁর রুহের মাগফেরাত কামনা করে মিলাদ ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হবে।
সভায় জানানো হয়, মুজিববর্ষ উপলক্ষে শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবন ও কর্মের ওপর আন্তর্জাতিক সেমিনারের আয়োজন করবে। শোকের মাস আগষ্টে ওসমানী স্মৃতি মিলানায়তনে এ সেমিনারের আয়োজন করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করবেন একজন দেশী এবং একজন বিদেশী আন্তর্জাতিক ব্যক্তিত্ব। এছাড়া সভায় এবছর মহান মে দিবস বিশেষ আয়োজনে পালনের সিদ্ধান্ত হয়।
সভাপতির বক্তৃতায় মন্ত্রণালয়ের সচিব কে এম আলী আজম বলেন, প্রতি বছর শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় ২৮ এপ্রিল জাতীয় পেশাগত স্বাস্থ্য ও সেইফটি (ওএসএইচ) দিবসে পেশাগত স্বাস্থ্য ও সেইফটি চর্চা পুরস্কার প্রদান করে। এ বছর জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষ্যে গ্রিন ফ্যাক্টরি অ্যাওয়ার্ড প্রদান করা হবে।
তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর যে বিশালতা তা সকলের মাঝে ছড়িয়ে দিতে হবে। সকলে মিলে বঙ্গবন্ধুর চেতনা জাগ্রত রাখতে হবে।
সভায় অতিরিক্ত সচিব ড. মোল্লা জালাল উদ্দিন, ড. মোঃ রেজাউল হক, সাকিউন নাহার বেগম, কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তরের মহাপরিদর্শক শিবনাথ রায় এবং শ্রম অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এ কে এম মিজানুর রহমানসহ মন্ত্রণালয় এবং এর অধীন দপ্তরসমূহের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।