বাসস ক্রীড়া-৮ : অস্বস্তিকর অবস্থাতেই টি-২০ সিরিজ শুরু করছে ভারত ও শ্রীলংকা

228

বাসস ক্রীড়া-৮
ক্রিকেট-টি-২০
অস্বস্তিকর অবস্থাতেই টি-২০ সিরিজ শুরু করছে ভারত ও শ্রীলংকা
গুয়াহাটি, ৪ জানুয়ারি, ২০২০ (বাসস) : বিভিন্ন বিধি-নিষেধ ও বেশ কড়াকড়ির মধ্যে সিরিজের প্রথম ম্যাচ খেলতে নামবে ভারত ও শ্রীলংকা। গেল মাসে পাশ হওয়া নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের প্রতিবাদে উত্তাল গুয়াহাটি। সরকারি হিসাব অনুযায়ী কার্ফু ভেঙে প্রতিবাদ করতে গিয়ে পুলিশের গুলিতে চার জনের মৃত্যুও হয়েছে। বর্তমানে শান্তিপূর্ণ অবস্থা বিরাজ করলেও, পরিস্থিতি এখন বেশ সরগরম। আর এই গুয়াহাটিতেই আগামীকাল ভারত-শ্রীলংকার তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম টি-২০। আগামীকাল গুয়াহাটিতে বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৭টা ৩০ মিনিটে শুরু হবে প্রথম টি-২০।
সরগরম অবস্থার জন্য ম্যাচের দু’দিন আগে থেকেই স্টেডিয়াম ঘিরে রেখেছে পুলিশ । তবে গুয়াহাটির পুলিশ কমিশনার মুন্নাপ্রসাদ গুপ্ত অন্য কথা বলছেন, আন্তর্জাতিক ম্যাচ আয়োজন করতে যে ধরনের নিরাপত্তা প্রয়োজন, আমরা সে রকমই করেছি। নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বেগের কোনও কারণ নেই। যে পরিমাণ নিরাপত্তারক্ষী রয়েছে, তাতে ম্যাচ আয়োজনে সমস্যা হবে না।’
এছাড়া মাঠে প্রবেশে বেশ কিছু নিয়ম-নীতি করে দিয়েছে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী। নতুন বছরের প্রথম টি-২০ ম্যাচে পোস্টার, ফেস্টুন, স্কেচ পেন, রং, তুলি, মার্কার নিষিদ্ধ থাকছে। তবে মোবাইল ফোন, মানিব্যাগ ও গাড়ির চাবি সাথে রাখতে পারবেন ম্যাচ দেখতে আসা দর্শকরা।
এমন অস্বস্তিকর অবস্থার মধ্যেও ভারত-শ্রীলংকা প্রথম টি-২০ ম্যাচের টিকিটের চাহিদা তুঙ্গে। ৩৯ হাজার ৪শ’ ধারণ ক্ষমতা সম্পন্ন স্টেডিয়ামটির ইতোমধ্যে ৩৩ হাজার টিকিট বিক্রি হয়ে গেছে।
তবে দর্শকদের মন খারাপের উপলক্ষ আছে। সেখানকার আবহাওয়া পূর্বাভাস বলছে, ম্যাচের দিন বৃষ্টি হবে। কিন্তু বৃষ্টি থামলে আধ ঘন্টার মধ্যে ম্যাচ শুরুর ইঙ্গিত দেন অসম ক্রিকেট সংস্থা (এসিএ) সচিব দেবজিৎ, ‘ভারত-অস্ট্রেলিয়া ম্যাচের দিনও বৃষ্টি হয়েছিল। বৃষ্টি থামার আধ ঘণ্টার মধ্যে ম্যাচ শুরু করা হয়েছিলো। বালির স্তরের উপরে মাটি বসিয়ে তৈরি করা হয়েছে এই মাঠ। তাই কখনও এখানে পানি জমে থাকে না।’
তবে মাঠের বিষয় নিয়ে খুব বেশি চিন্তিত নয় ভারত ও শ্রীলংকা। নিজেদের খেলা নিয়ে বেশি মনোযোগি তারা। ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি বলেন, ‘আমরা পেশাদার খেলোয়াড়। খেলা নিয়ে আমাদের সকল চিন্তা। মাঠে নিজেদের সেরা ক্রিকেটই খেলতে চাই আমরা। সিরিজ জয়ের লক্ষ্য নিয়ে শুরু করছি আমরা। এছাড়া বিশ্বকাপের চিন্তাও আমাদের পরিকল্পনায় আছে। এই সিরিজ দিয়েও বিশ্বকাপের জন্য নিজেদের তৈরি করছি আমরা।’
দীর্ঘদিন পর দলে ফিরছেন পেসার জসপ্রিত বুমরাহ। দলের সেরা পেসারকে পুরনো চেহারায় দেখা যাবে বলে আশাবাদি কোহলি, ‘বুমরাহকে আগের চেহারায় দেখতে পাবো বলে আশা করছি। দলের জয়ে ভূমিকা রাখতে পারবে সে।’
বিশ্বকাপের পরিকল্পনায় এই সিরিজ দিয়ে নিজেদের পরীক্ষা করা হবে বলে জানান শ্রীলংকার অধিনায়ক লাসিথ মালিঙ্গা। তিনি বলেন, ‘টি-২০ বিশ্বকাপ আমাদের নজরে আছে। তা মাথায় রেখেই ভারতের বিপক্ষেই খেলতে নামব। আমরা চাইব, সেরা দলটাকেই সাজাতে। ভারতের বিপক্ষে এই সিরিজটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তিন ম্যাচের সিরিজে আমরা সবাইকে সুযোগ দিতে পারব না। কিন্তু যারা সুযোগ পাবে, তাদের ভাল খেলতে হবে।’
ভারত দল : বিরাট কোহলি (অধিনায়ক), শিখর ধাওয়ান, কেএল রাহুল, শ্রেয়াশ আইয়ার, মনিষ পান্ডে, সঞ্জু স্যামসন, ঋষভ পান্থ, শিবম দুবে, যুজবেন্দ্রা চাহাল, কুলদ্বীপ যাদব, রবিন্দ্র জাদেজা, শারদুল ঠাকুর, নবদীপ সাইনি, জসপ্রিত বুমরাহ, ওয়াশিংটন সুন্দর।
শ্রীলংকা দল: লাসিথ মালিঙ্গা(অধিনায়ক), দানুসকা গুনাতিলকা, আবিস্কা ফার্নান্দো, এ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজ, দাসুন শানাকা, কুসল পেরেরা, নিরোশান ডিকবেলা, ধনঞ্জয়া ডি সিলভা, ইসুরু উদানা, ভানুকা রাজাপাকসে, ওশাদা ফার্নান্দো, ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা, লাহিরু কুমারা, কুসল মেন্ডিজ, লক্ষন সান্দাকান, কাসুন রাজিথা।
বাসস/এএসজি/এএমটি/১৯০৫/স্বব