আসন্ন এসএ গেমসের জন্য ৬২১ সদস্যের বাংলাদেশ প্রতিনিধি দল

229

ঢাকা, ২৩ নভেম্বর, ২০১৯ (বাসস) : দক্ষিণ এশিয়ার অলিম্পিক খ্যাত আসন্ন সাউথ এশিয়ান গেমসের (এসএ) ১৩তম আসরে ৬২১ সদস্যের শক্তিশালী কন্টিনজেন্ট পাঠাবে বাংলাদেশ। আগামী ১ থেকে ১০ ডিসেম্বর নেপালের কাঠমান্ডু ও পোখারায় অনুষ্ঠিতব্য এ গেমসে ২৫টি ডিসিপ্লিনে অংশ নেবে বাংলাদেশের ক্রীড়াবিদরা।
ডিসিপ্লিনগুলো হচ্ছে- আরচ্যারি, এ্যাথলেটিকস, ব্যাডমিন্টন, বাস্কেটবল, বক্সিং, সাইক্লিং, ফেন্সিং, ফুটবল, গলফ, ক্রিকেট, হ্যান্ডবল, জুডো, কাবাডি, কারাতে, খো খো, শ্যুটিং, স্কোয়াশ, সুইমিং, টেবিল টেনিস, তায়কোয়ানদো, টেনিস, ভলিবল, ভারোত্তোলন, রেসলিং ও উশু।
৬২১ সদস্যের বাংলাদেশ কন্টিনজেন্টের মধ্যে ৫৯৫ জন এ্যাথলেট রয়েছেন। যাদের মধ্যে ২৬৩ জন পুরুষ ও ১৯৯ জন মহিলা। এছাড়া রয়েছে ট্রেইনার, সেফ দ্য মিশন, ডেপুটি সেফ দ্য মিশন, ম্যানেজার, টিম ডাক্তার ও প্রশাসনিক কর্মকর্তারা।
সেফ দ্য মিশন হিসেবে কন্টিনজেন্টের নেতৃত্ব দিবেন বাংলাদেশ অলিম্পিক এসোসিয়েশনের (বিওএ) উপ-মহাসচিব এবং হ্যান্ডবল ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান কোহিনুর। ডেপুটি সেফ দ্য মিশনের দায়িত্ব পালন করবেন যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম-সচিব ও বিওএ’র সদস্য মো: ওমর ফারুক ও বাংলাদেশ জুডো ফেডারেশনের সিনিয়র সহ-সভাপতি পুলিশ সুপার সৈয়দ জান্নাত আরা।
উদ্বোধনী দিনে মার্চপাষ্টে বাংলাদেশ দলের পতাকা বহন করবেন ভারতে অনুষ্ঠিত ১২ তম এসএ গেমসে দুটি স্বর্ণ পদক জয়ী সাঁতারু মাহফুজা খাতুন শিলা।
আগামী ২৫ নভেম্বর সোমবার প্রথম দল হিসেবে নেপালের উদ্দেশ্যে যাত্রা করবে বাংলাদেশ ভলিবল দল। সূচি অনুযায়ী ধাপে ধাপে বাকী দলগুলো নেপাল যাবে এবং দেশে ফিরে আসবে। ইতোমধ্যে অবশ্য নেপাল পৌঁছেছে বাংলাদেশ সাঁতার ও সাইক্লিং দল। এছাড়া বর্তমানে ভারত ও থাইল্যান্ডে থাকা কাবাডি ও আরচ্যারি দল সেখান থেকেই সরাসরি নেপাল যাবে।
গেমস উপলক্ষে আজ বিওএ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে বিওএ মহাসচিব সৈয়দ শাহেদ রেজা বলেন, ‘গেমসে অ্যাথলেটরা তাদের সেরাটা দিতে সক্ষম হবে বলে আমি আশাবাদী। আসলে আমাদের মুল লক্ষ্য হচ্ছে গত আসরের চেয়ে ভাল করা। এ্যাথলেটরা ভাল করার জন্য দারুন প্রত্যয়ী।
প্রশিক্ষন অবকাঠামোর ঘাটতি ও ডেঙ্গুর আক্রমন সত্বেও গত ছয় মাস ধরে নিবিড়ভাবে প্রশিক্ষণ নিয়েছেন এ্যাথলেটরা। আমরাও তাদের উপর তীক্ষè নজর রেখেছি। অপ্রতুলতার মধ্যেও অনুশীলনের জন্য তাদেরকে সর্বোচ্চ সহায়তা দেয়া হয়েছে। যাতে এসএ গেমসে তারা ভাল দক্ষতা প্রদর্শন করতে পারে।’
গেমসে আরচ্যারি, শ্যুটিং ও ফুটবলে বাংলাদেশ দলের ভাল সম্ভাবনা রয়েছে বলেও মন্তব্য করেন বিওএ মহাসচিব। এক প্রশ্নের জবাবে বিওএ মহাসচিব বলেন, যে গেমসের জন্য তারা ৩০ কোটি টাকা বাজেট করেছেন।
আগামী বছর ১ থেকে ১০ এপ্রিল ৯বম বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ গেমস আয়োজন করা হবে বলেও উল্লেখ করেন শাহেদ রেজা।
এর আগে ভারতের গৌহাটিতে সাউথ এশিয়ান গেমসের গত আসরে ৭১৮ জনের কন্টিনজেন্ট প্রেরণ করেছিল বাংলাদেশ। আট জাতির ওই আসরে চারটি স্বর্ন, ১৫টি রৌপ্য ও ৫৬টি ব্রোঞ্জসহ মোট ৭৫টি পদক নিয়ে পঞ্চম স্থান অর্জন করেছিল বাংলাদেশ।
সেফ দ্য মিশন আসাদুজ্জামান কোহিনুর, বিওএ’র কোষাধ্যক্ষ ও গেমসের মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান কাজী রাজিব উদ্দিন আহমেদ চপল, ডেপুটি সেফ দ্য মিশন মো.ওমর ফারুক ও সৈয়দ জান্নাত আরা সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন।