বাসস দেশ-১৭ : মুক্তিযোদ্ধাদের বীরত্ব কাহিনী রেকর্ড করে তা সংরক্ষণ করা হবে : মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী

676

বাসস দেশ-১৭
মুক্তিযুদ্ধ-কমপ্লেক্স
মুক্তিযোদ্ধাদের বীরত্ব কাহিনী রেকর্ড করে তা সংরক্ষণ করা হবে : মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী
ঢাকা, ৩০ জুন, ২০১৮ (বাসস) : সকল জীবিত মুক্তিযোদ্ধার যুদ্ধকালীন বীরত্ব কাহিনী রেকর্ড করে তা সংরক্ষণের উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক।
তিনি বলেন, ‘মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস সংরক্ষণের লক্ষ্যে সরকার মৃত্যুর সকল মুক্তিযোদ্ধার কবর একই ডিজাইনে করার লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণসহ বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণ করেছে।’
মন্ত্রী আজ মুন্সীগঞ্জ জেলার সিরাজদিখান উপজেলায় মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স উদ্বোধন শেষে আয়োজিত জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতা করছিলেন।
তিনি বলেন, সরকার আগামী মাস থেকে মুক্তিযোদ্ধাদের বিনা খরচে চিকিৎসা ও ওষুধ সুবিধা প্রদান করতে যাচ্ছে। পাশাপাশি তাদের বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা প্রদানের পরিধিও বাড়াচ্ছে। মুক্তিযোদ্ধারা বর্তমানে দুই ঈদে দুটি বোনাস পেলেও এ অর্থবছর তারা আরও ২টি বোনাস পেতে যাচ্ছেন। মহান বিজয় দিবস এবং বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে দু’টি বোনাস দেয়া হবে।
জাতির শ্রেষ্ঠতম অর্জন মুক্তিযুদ্ধের চেতনা সমুন্নত রাখতে ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে অনুপ্রাণিত করার আহবান জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, জাতির পিতার ডাকে জীবন বাজি রেখে মুক্তিযোদ্ধারা দেশ স্বাধীন করেছেন। ১৯৭৫ সালে বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে ঘাতকেরা এদেশকে মিনি পাকিস্তান বানিয়েছিল।
মোজাম্মেল হক বলেন, ‘দেশের সব যুদ্ধক্ষেত্র ও গণহত্যার বদ্ধভূমিতে একই ডিজাইনে স্মৃতিস্তম্ভ নির্মাণ করা হবে। বিসিএস পরীক্ষায় ১৯৪৮ থেকে ১৯৭০ সাল পর্যন্ত সময়কালীন বিভিন্ন ঘটনাবলীর ওপর ৫০ এবং মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বিষয়ে ৫০-সহ মোট ১০০ নম্বরের পরীক্ষা অন্তর্ভুক্ত করার পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে।’
মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় ‘উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবন নির্মাণ প্রকল্প’-এর আওতায় দেশের সব উপজেলায় একটি করে মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স নির্মাণ করছে। স্থানীয় সরকার প্রকৌশল বিভাগের তত্ত্বাবধানে পৌনে তিন কোটি টাকা ব্যয়ে বাস্তবায়িত পাঁচতলা ফাউন্ডেশনের উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স-এর তিনতলা ভবনের প্রথম ও দ্বিতীয় তলায় বিপণী বিতান এবং তৃতীয় তলায় মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কার্যালয় থাকছে।
মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রশাসক সায়লা ফারজানার সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন মুন্সীগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য সাগুফতা ইয়াসমিন এমিলি, সিরাজদিখান উপজেলা চেয়ারম্যান মহিউদ্দিন আহমেদ ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার তানবীর মোহাম্মদ আজিম।
বাসস/সবি/এমএসএইচ/১৯০৯/-শহক