দেশে স্যানিটেশনের জাতীয় কভারেজ শতকরা ৯৯ ভাগ : প্রধানমন্ত্রী

638

ঢাকা, ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ (বাসস) : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, দেশে বর্তমানে স্যানিটেশনের জাতীয় কভারেজ শতকরা ৯৯ ভাগ।
তিনি বলেন,‘আমরা গ্রামীণ ও পৌর জনপদে বিশুদ্ধ পানি সরবরাহ ও স্বাস্থ্যসম্মত স্যানিটেশন নিশ্চিত করতে বিগত ১০ বছরে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের মাধ্যমে ১২ হাজার ২শ’ ৪৬ কোটি টাকা ব্যয়ে ৪৭টি প্রকল্প বাস্তবায়ন করেছি। যার ফলে স্যানিটেশনের জাতীয় কভারেজ ৯৯ শতাংশে উন্নীত হয়েছে।’
শেখ হাসিনা ‘জাতীয় স্যানিটেশন মাস’ এবং ‘বিশ্ব হাত ধোয়া দিবস’ উপলক্ষে আজ এক বাণীতে এ কথা বলেন।
বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ২০০৯ সালে সরকার গঠনের পর থেকে জনস্বাস্থ্যের উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।
‘স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে প্রতি বছরের মতো এবারও ‘জাতীয় স্যানিটেশন মাস অক্টোবর-২০১৯’ এবং আগামীকাল (১অক্টোবর) ‘বিশ্ব হাত ধোয়া দিবস’ পালন করা হচ্ছে জেনে সন্তোষ প্রকাশ করে এ আয়োজনের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সকলকে তিনি আন্তরিক অভিনন্দন জানান।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশে স্বাস্থ্যসচেতনতা বৃদ্ধি পাওয়ার পাশাপাশি অনিরাপদ পানি ও স্যানিটেশনের অভাবজনিত রোগের প্রাদুর্ভাব উল্লেযোগ্য হারে হ্রাস পেয়েছে।
তিনি বলেন,‘আমাদের গৃহীত কার্যক্রমের ফলে স্যানিটেশন সম্পর্কিত জাতিসংঘের সহ¯্রাব্দের উন্নয়ন লক্ষ্য-৭ অর্জনে বাংলাদেশ অভূতপূর্ব সাফল্য অর্জন করেছে।’
শেখ হাসিনা বলেন, তাঁর নেতৃত্বাধীন সরকার জাতিসংঘের টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট-৬ অর্জনের লক্ষ্যে টেকসই প্রযুক্তির উদ্ভাবন ও এর প্রয়োগ সংশ্লিষ্ট ক্ষেত্রে মানবসম্পদ উন্নয়ন, পরিবেশ-বান্ধব ইকো-টয়লেট নির্মাণ, নিরাপদ পানি সরবরাহ ও ব্যবহার এবং আর্সেনিক বিষয়ে সচেতনতা সৃষ্টিসহ নানাবিধ কার্যক্রম বাস্তবায়ন করছে।
প্রধানমন্ত্রী বলেন,‘আমি আশা করি, স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে জনসচেতনতামূলক এ আয়োজন সবার জন্য স্যানিটেশন নিশ্চিত করে জনস্বাস্থ্যের উন্নয়নে তাৎপর্যপূর্ণ অবদান রাখবে।’
শেখ হাসিনা স্যানিটেশন সম্পর্কিত সামাজিক আন্দোলনকে আরও বেগবান করে টেকসই উন্নয়ন অভীষ্টসমূহ অর্জনে সরকারের পাশাপাশি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান, বিভিন্ন উন্নয়ন সহযোগি সংস্থা ও গণমাধ্যমসহ দেশের প্রতিটি নাগরিককে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।
‘জাতীয় স্যানিটেশন মাস অক্টোবর ২০১৯’ এবং ‘বিশ্ব হাত ধোয়া দিবস’র সার্বিক সাফল্য কামনা করেন।