আশা বাঁচানোর লড়াইয়ে কাল ক্রোয়েশিয়ার মোকাবেলা করবে আইসল্যান্ড

367

জেলেনঝিক (রাশিয়া), ২৫ জুন ২০১৮ (বাসস): আশা বাঁচিয়ে রাখার লড়াইয়ে কাল রাশিয়া বিশ্বকাপে ক্রোয়েশিয়ার মোকাবেলা করবে আইসল্যান্ড। ইতোমধ্যে আর্জেন্টিনা ও নাইজেরিয়াকে হারিয়ে নক আউট পর্ব নিশ্চিত করেছে ক্রেয়েশিয়া। ‘ডি’ গ্রুপের শীর্ষে থাকা দলটি ২-০ গোলে নাইজেরিয়াকে এবং ৩-০ গোলে আর্জেন্টিনাকে পরাজিত করেছে। অপরদিকে নিজেদের প্রথম ম্যাচে শক্তিশালী আর্জেন্টিনার সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করলেও পরের ম্যাচে নাইজেরিয়ার কাছে ২-০ গোলে হেরে গেছে আইসল্যান্ড। ফলে টুর্নামেন্টে টিকে থাকতে হলে একদিকে তাদের যেমন ক্রেয়েশিয়াকে হারাতে হবে সেই সঙ্গে নির্ভর করতে হবে আর্জেন্টিনা বনাম নাইজেরিয়ার মধ্যকার ম্যাচের ফলাফলের ওপর।
যে কারণে আগামীকালকের ম্যাচটি হবে আইস্যান্ডের জন্য অসাধ্য সাধনের ম্যাচ। আইসল্যান্ডের কোচ হেইমির হলগ্রিমসন সম্প্রতি এক সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, ‘আমরা গত চার বছরে চারবার ক্রেয়েশিয়ার মোকাবেলা করেছি। আমরা প্রায়ই বলে থাকি ক্রোয়েশিয়া আইসল্যান্ড যেন বিবাহিত জুটি, বিচ্ছেদের চেষ্টা করছি জোটভুক্ত হবার কারণে চেয়েছিলাম জোট ভাংতে। কিন্তু বার বার তাদের সঙ্গে দেখা হচ্ছে।’
আসন্ন ম্যাচটি প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ হবে বলেই আশা করছেন এই কোচ। সর্বশেষ ছয় মোকাবেলায় আইসল্যান্ড দু’টিতে ড্র করলেও ক্রেয়েশিয়ার কাছে হেরেছে চার ম্যাচে।
এদিকে নিজেদের আক্রমণাত্মক মেজাজকে আরো শনিত করে তুলতে চায় ক্রোয়েশিয়া। যদিও নাইজেরিয়াকে ২-০ গোলে হারানোর পর আর্জেন্টিনার বিপক্ষে ৩-০ গোলের জয় নিয়ে নিজেদের আক্রণাত্মক মেজাজের প্রতিফলন ঘটিয়েছে ক্রোয়েশিয়া। ফলে টুর্নামেন্টের সবচেয়ে আকর্ষণীয় দল হিসেবে তারা প্রতিষ্ঠিত হয়েছে।
দলের প্লে মেকার লুকা মড্রিচ ইতোমধ্যে দুই গোলের মালিক বনে গেছেন। ফলে ১৯৯৮ সালের বিশ্বকাপে তৃতীয়স্থান পাওয়া দলের সেরা খেলোয়াড় হিসেবেও প্রতিষ্ঠিত হয়েছেন। তারপরও দলটির বিপক্ষে ইতিবাচক ফলাফল করার আশা করছেন আইসল্যান্ডের কোচ হলগ্রিমসন। তিনি বলেন, ‘গ্রুপ পর্বের বাছাইয়ে আমরা তাদের চেয়ে এগিয়ে ছিলাম। আইসল্যান্ডে একবার আমরা তাদের হারিয়েও দিয়েছি। সুতরাং ক্রোয়েটদের বিপক্ষে ভাল কিছু করার মত আত্মবিশ্বাস আমাদের আছে।’
আইসল্যান্ড
গোলরক্ষক : হ্যানেস হ্যাল্ডারসন (১), রানার রানারসন(১৩), ফ্রেডেরিক শ্র্যাম(১২),
রক্ষণভাগ : আরি স্কুলাসন(২৩), বিরকির সাভারসন(২), সেরির ইঙ্গাসন(৫), হর্ডার ম্যাগনুসন(১৮), হলমার এইজলফসন(১৫), রাগনার সিগার্ডসন(৬), স্যামুয়েল ফ্রিডজনসন(৩)।
মধ্য মাঠ : আর্নর ইঙ্গভি ট্রস্টাসন(২১), এ্যারন গানারসন (১৭), জিলফি সিগার্ডসন (১০), এমিল হলফ্রেডসন (২০), বিরকির বিয়ার্নসন (৮), জোহান গুডমান্ডসন(৭), ওলাফুর স্কুলাসন (১৬), কারি আরনাসন (১৪)।
আক্রমণ ভাগ: আলফ্রেড ফিনবগাসন (১১), জন বডভারসসন (২২), রুরিক গিসলাসন (১৯), বিয়র্ন বার্গম্যান সিগার্ডসন (৯), আলবার্ট গুডমান্ডসন (৪)।
কোচ : হেইমির হলগ্রিমসন
ক্রোয়েশিয়া
গোলরক্ষক : ড্যানিয়েল সুবাসিচ(২৩), লভরে কালিনিচ(১২), ডোমিনিক লিভাকোভিচ(১)।
রক্ষণ ভাগ: ভেড্রান কোরলুকা(৫), ডোমাগো ভিদা(২১), ইভান স্ট্রিনিচ(৩), ডেজান লভরেন(৬), সিমে ভার্সালিকো(২), জোসিপ পিভারিচ(২২), টিন জেডভাজ(১৩), ডুয়ে চ্যালেটা-কার এজ(১৫)।
মিডফিল্ডার: ইভান পেরিসিচ(৪), লুকা মড্রিচ(১০), ইভান রাকিটিচ(৭), মাতেও কোভাচিচ(৮), মিলান বাদেলি(১৯), মার্সেলো ব্রোজোভিচ(১১), ফিলিপ ব্রাডারিচ(১৪)।
ফরোয়ার্ড: মারিও মান্দজুকিচ(১৭), নিকোলা কালিনিচ(১৬), আন্দ্রেই ক্রামারিচ(৯), মার্কো পিয়াচা(২০), এ্যান্টে রেবিচ(১৮)।
কোচ: জ্লাটকো ডেলিচ