বিশ্বকাপ জিতেই অবসর নিবো : মেসি

580

সেন্ট পিটার্সবার্গ (রাশিয়া), ২৫ জুন ২০১৮ (বাসস) : ফুটবল বিশ্বকাপ ট্রফি হাতে তোলার পরই আন্তর্জাতিক ফুটবল থেকে অবসর নিতে চান আর্জেন্টিনা অধিনায়ক লিওনেল মেসি। গতকাল ৩১তম জন্মদিনে এমন পণই করলেন বিশ্ব ফুটবলের ক্ষুদে এই জাদুকর। এমনিতেই চলতি বিশ্বকাপে এখনও শেষ ষোলো নিশ্চিত হয়নি আর্জেন্টিনার। শেষ ষোলোতে যাওয়ার দোলাচলে দুলছে মেসির দল। এমন অবস্থায় বিশ্বকাপ জিতেই অবসর নেয়ার অঙ্গীকার করলেন মেসি, ‘আমি গুরুত্বপূর্ণ প্রায় সব কিছুই জিতেছি। কিন্তু শেষটাতে এসে আমি উচ্চাভিলাষী। আর্জেন্টিনার হয়ে বিশ্বকাপ না জিতে আমি ফুটবল থেকে অবসর নেব না।’
২০১৪ বিশ্বকাপে একাই দলকে ফাইনালে তুলেন মেসি। কিন্তু ব্রাজিলে অনুষ্ঠিত ঐ বিশ্বকাপের ফাইনালের অতিরিক্ত সময়ের গোলে জার্মানির কাছে ১-০ গোলে হেরে যায় আর্জেন্টিনা। ফলে বিশ্বকাপ উচিয়ে ধরার দ্বারপ্রান্তে এসে হতাশার চাদরে মুষড়ে পড়তে হয় মেসিকে।
২০১৪ আসরের ব্যর্থতার পর কোপা আমেরিকার শতকম টুর্নামেন্টের ফাইনালে চিলির কাছে ট্রাইব্রেকারে ৪-২ গোলে হেরে টানা দ্বিতীয়বারের মত রানার্স-আপ হতে হয় আর্জেন্টিনাকে। ২০১৫ সালেও এই চিলির কাছে টাইব্রেকারে ৪-১ গোলে হেরেছিলো মেসির দল। এই ক্ষোভে ২০১৬ জাতীয় দল অবসরের ঘোষণা দিয়ে দেন মেসি।
তবে আর্জেন্টিনার প্রেসিডেন্টের অনুরোধে অবসর ভেঙ্গে আবারো আন্তর্জাতিক ফুটবলে ফিরে আসেন মেসি। ফিরে এসে ২০১৮ বিশ্বকাপ জয়ের স্বপ্ন দেখতে থাকেন তিনি। তবে বিশ্বকাপ বাছাই পর্বে বাঁধা খুড়িয়ে খুড়িয়ে পেরোতে হয় দু’বারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনাকে। বিশ্বকা বাছাই পর্বের শেষ ম্যাচে মেসির হ্যাট্টিকে ইকুয়েডরকে ৩-১ গোলে হারিয়ে বিশ্বকাপের টিকিট কাটে আর্জেন্টিনা।
তারপরও বিশ্বকাপে ভালো করার ব্যাপারে আশাবাদি ছিলেন মেসি। কিন্তু নবাগত আইসল্যান্ডের সাথে ১-১ গোলে ড্র’ দিয়ে এবারের বিশ্বকাপ শুরু করে আর্জেন্টিনা। অবশ্য ঐ ম্যাচে মেসি পেনাল্টি মিস না করলে খেলার ফল অন্যরকম হতে পারতো।
ড্র’র পর ক্রোয়েশিয়ার কাছে ৩-০ গোলে লজ্জার হার বরণ করে অর্জেন্টিনা। ঐ হারে বিশ্বকাপের শেষ ষোলোতে যাবার পথ কঠিন হয়ে পড়ে মেসির দলের। তবে শেষ ষোলোতে যাবার পথ এখনো খোলা আছে তাদের। আগামীকাল গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে নাইজেরিয়াকে হারাতেই হবে আর্জেন্টিনার। পাশাপাশি ‘ডি’ গ্রুপের অন্য ম্যাচে ক্রোয়েশিয়ার কাছে আইসল্যান্ডের হারতে হবে অথবা ড্র করতে হবে।
তাই নাইজেরিয়ার বিপক্ষে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচের আগে আত্মবিশ্বাসী বক্তব্যই দিলেন মেসি। ঐ ম্যাচ নিয়ে কথা না বললেও আর্জেন্টিনাকে ৩২ বছর পর বিশ্বকাপ জয়ের স্বাদ দেয়ার ইঙ্গিত দিলেন মেসি, ‘বিশ্বকাপ জয় আমার কাছে অনেক বড় কিছু। কারণ, আর্জেন্টিনার জন্য বিশ্বকাপ জয় বিশেষ একটা ব্যাপার। আসলে আমার কাছে এটা বিশেষ কিছু।’
আর্জেন্টিনার হয়ে একবার বিশ্বকাপ উঁিচয়ে ধরতে মরিয়া হয়ে আছেন মেসি। জন্মদিনের দিন তার বক্তব্য ওমনই ইঙ্গিত দিচ্ছে, ‘বিশ্বকাপের ট্রফি উপরে তুলে ধরার স্বপ্ন আমি সব সময়ই দেখে আসছি। বিশ্বকাপ জেতার পর যে আনন্দের অনুভূতি হয়, সেটা অন্যদের মধ্যে দেখেছি। ঐ মূর্হুতটি নিয়ে ভাবলে আমার মাথার চুল দাঁড়িয়ে যায়। আমি বিশ্বের লাখ-লাখ আর্জেন্টাইনকে বিশ্বকাপের আনন্দ দিতে চাই। আমি সকলের এই স্বপ্নটা বিসর্জন দিতে পারি না।’
গতকাল ছিলো মেসির ৩১তম জন্মদিন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে জন্মদিনের শুভেচ্ছার বার্তা পেয়েছেন তিনি। তাকে শুভেচ্ছা দিতে ভুল করেননি মেসির স্ত্রী আন্তোনেইয়া রোকুজ্জোও।
জন্মদিনের দিন বিশ্বকাপ জয়ের জন্য অস্থির হয়ে উঠলেন মেসি। এমনকি বিশ্বকাপ না জিতে ফুটবল থেকে অবসর না নেয়ার পণও করে বসলেন তিনি। নাইজেরিয়ার বিপক্ষে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচের আগে এটি কিসের আভাস হতে তা সময়ই বলে দিবে।