হত্যা মামলায় ২ জনের ফাঁসি ও ৩ জনের যাবজ্জীবন

388

কুষ্টিয়া, ৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ (বাসস) : কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা থানায় দায়ের করা সোহাগ হত্যা মামলায় অভিযুক্ত দুই আসামীকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদন্ড ও তিনজনকে যাবজ্জীবন কারাদন্ডাদেশ দিয়েছে আদালত।
আজ জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক অরুপ কুমার গোস্বামী এই রায় ঘোষণা করেন।
সোহাগ হত্যা মামলায় মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত আসামী হলেন, জেলার মিরপুর থানা আহম্মদপুর গ্রামের আহাদ আলীর ছেলে মো. নাজমুল ও ভেড়ামারা উপজেলার ১২ মাইল এলাকার আবুল কালামের ছেলে মো. রনি। যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্তরা হলেন জেলার চৌড়হাঁস এলাকার ইসমাইল হোসেনের ছেলে মো. রাব্বি, কুমারগাড়া এলাকার আব্দুল আজিজের ছেলে মো. সুজা ও চৌড়হাঁস বড় মসজিদ এলাকার মো. খলিলের ছেলে মো. রফিক।
মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত আসামী মো. রনি রায় ঘোষণার সময় আদালতে উপস্থিত ছিলেন বাকি আসামীরা পলাতক রয়েছেন।
আদালত সূত্র জানায়, ২০১২ সালের ৯ অক্টোবর কুষ্টিয়ার কুমারগাড়া এলাকার আব্বাস উদ্দিনের ছেলে সোহাগকে একটি মোবাইল ফোনের জন্য বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে হত্যা করে অভিযুক্তরা। এই ঘটনায় সোহাগের খালু শহিদুল ইসলাম ভেড়ামারা থানায় অভিযুক্ত এই ৫ জনকে আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। ভেড়ামারা পুলিশ ২০১৭ সালের ৩০ এপ্রিল আদালতে চার্জশীট জমা দেন।
মামলার রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবি ও কুষ্টিয়া কোর্টের পিপি এডভোকেট অনুপ কুমার নন্দী রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।