বাসস দেশ-১৮ : নিজেদের মতো করে ছবি আঁকার মধ্যদিয়েই শিশুরা দক্ষ হয়ে উঠবে : সংস্কৃতিমন্ত্রী

580

বাসস দেশ-১৮
সংস্কৃতিমন্ত্রী-মতবিনিময়
নিজেদের মতো করে ছবি আঁকার মধ্যদিয়েই শিশুরা দক্ষ হয়ে উঠবে : সংস্কৃতিমন্ত্রী
নীলফামারী, ২২ জুন, ২০১৮ (বাসস) : সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর বলেছেন, ছবি আঁকার কাজে শিশুদের নৈপুণ্য থাকতে হবে এমন কথা নেই, ওরা নিজেদের মতো করে ছবি আঁকার মধ্যদিয়েই একদিন দক্ষ হয়ে উঠবে।
তিনি বলেন, শিশুদের আগ্রহ অনুযায়ী ভবিষ্যতে আমরা প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে নাচ, গান ও ছবি আঁকা যার যেটা ইচ্ছা সেভাবে আমরা তাদেরকে অগ্রসর করবো।
শুক্রবার বিকেলে সেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘ভিশন ২০২১’-এর উদ্যোগে জেলা শহর রাঙানোর কার্যক্রমকে আরো গতিশীল করতে ক্ষুদে শিল্পী ও অভিভাবকদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন। শহরের উপজেলা সড়কে মন্ত্রীর বাসভবনের সামনে ওই সভা অনুষ্ঠিত হয়।
সংস্কৃতিমন্ত্রী বলেন, ‘শিশুরা ওদের মতো করে লিখুক, ওদের মতো করে ওরা ছবি আঁকুক, ওদের মতো করে ওরা ভাবতে শিখুক এটাই আমরা চাই।’
তিনি বলেন, ‘ভিশন ২০২১ কোনো রাজনৈতিক প্লাটফর্ম নয়, কোনো দলের কথা বলে না। তবে অবশ্যই বাংলাদেশের কথা বলে, মুক্তিযুদ্ধের কথা, শহীদদের কথা, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর কথা, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা, অসম্প্রদায়িক চেতনা ও বাঙ্গালীত্বের কথা বলে।’
সভায় উপস্থিত ছিলেনÑ সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলিমুদ্দিন বসুনিয়া, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক হাফিজুর রশীদ, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবুজার রহমান, পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আল মাসুদ আলাল, জেলা যুবলীগের সভাপতি রামেন্দ্র নাথ বর্ধন, ভিশন ২০২১-এর প্রধান সমন্বয়কারী মো. ওয়াদুদ রহমান, সংগঠক রাশেল আমিন প্রমুখ।
ভিশন ২০২১-এর প্রধান সমন্বয়কারী মো. ওয়াদুদ রহমান জানান, সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূরের পৃষ্ঠপোষকতায় সংগঠনটি গত ৬ মার্চ থেকে ৮৮ জন ক্ষুদে শিল্পী নিয়ে বিভিন্ন দেয়ালে ছবি আঁকার মাধ্যমে শহর রাঙ্গানোর কাজ শুরু করেছে।
ইতিমধ্যে গুরুত্বপূর্ণ দেওয়াল রাঙানো হয়েছে। এসব দেওয়ালে শোভা পাচ্ছে বিভিন্ন প্রাকৃতিক দৃশ্য, মুক্তিযুদ্ধ, জাতীয় স্থাপনা, বঙ্গবন্ধু, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, কাজী নজরুল ইসলামসহ বিশিষ্টজনদের ছবি। এই কার্যক্রমকে আরো গতিশীল করতে ওই সভার আয়োজন করা হয়।
বাসস/সংবাদদাতা/এমএমবি/২১৩০/-কেজিএ