বাসস ক্রীড়া-১২ : আমিরের টেস্ট অবসরে বিস্মিত, ক্ষুব্ধ ওয়াসিম, রাজা, শোয়েবরা

208

বাসস ক্রীড়া-১২
ক্রিকেট-আমির
আমিরের টেস্ট অবসরে বিস্মিত, ক্ষুব্ধ ওয়াসিম, রাজা, শোয়েবরা
করাচি, ২৭ জুলাই, ২০১৯ (বাসস) : পাকিস্তানী পেসার মোহাম্মদ আমির মাত্র ২৭ বছর বয়সেই টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসর নেয়ায় বিস্মিত ও ক্ষুব্ধ হয়েছেন দেশটির সাবেক তারকা ক্রিকেটারা। আমিরের এমন সিদ্ধান্তের সমালোচনাও করেছেন তারা।
ইংল্যান্ডে সদ্য সমাপ্ত বিশ্বকাপে পাকিস্তান দলের সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী আমির হঠৎ করেই গতকাল শুক্রবার টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা দেন। স্পট ফিক্সিংয়ের দায়ে পাঁচ বছরের নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে পুনরায় খেলা ফেরা আমি মাত্র ৩৬ টেস্ট খেলেছেন।
পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক ওয়াসিম আকরাম টুইট করেন, ‘টেস্ট ক্রিকেট থেকে আমিরের অবসর নেয়ার সিদ্ধান্ত আমার কাছে কিছুটা বিস্ময়ের। কেননা ২৬-২৮ বছর বয়স আপনার সেরা সময় এবং টেস্ট ক্রিকেট হচ্ছে সেই জায়গা যেখানে সেরাদের বিপক্ষে আপনার পরীক্ষা মিলবে, এটাই চূড়ান্ত ফর্মেট। অস্ট্রেলিয়ায় দুই এবং ইংল্যান্ডে তিন টেস্টে পাকিস্তানের তাকে দরকার।’
আমিরের অবসরে এক রহস্যজনক টুইট করেছেন সাবেক অধিনায়ক ওয়াকার ইউনিস।
আমিরকে ট্যাগ করে তিনি লিখেছেন, ‘সাদা বলের ক্রিকেটে তোমার জন্য শুভ কামনা।’
তবে নিজের হতাশা প্রকাশ করতে ভুল করেননি রাজা। তিনি লিখেছেন, ‘২৭ বছর বয়সে আমিরের টেস্ট ক্রিকেট ছেড়ে দেয়াটা হতাশার। যা তারকা ও কিংবদন্তী তৈরী করে এমন ফর্মেটকে বিদায় জানানো পাশাপাশি পাক ক্রিকেটের প্রয়োজনীয়তার কথাটাও ভাবা দরকার ছিল। কেননা, টেস্ট ক্রিকেটকে পুনরায় ভাল অবস্থানে মরিয়া হয়ে আছে পাকিস্তান।’
পাকিস্তানের সাবেক পেসার শোয়েব আখতার বলেন স্পট ফিক্সিং কেলেঙ্কারীর কারণে নিষিদ্ধ হওয়ার পর পুনরায় খেলায় ফেরা আমিরের জন্য পাকিস্তান ক্রিকেট বিনিয়োগ করেছে।
নিজের ইউটিউব চ্যানেলে আখতার বলেন, ‘এখন পাকিস্তান ক্রিকেটকে আমিরের প্রতিদান দেয়ার সময় ছিল। আমার বয়স ২৭ বছর হলে আমি টেস্ট ক্রিকেট খেলতে পছন্দ করতাম। এটাই একজন ক্রিকেটারের চূড়ান্ত পরীক্ষা। আমিরের খেলা চালিয়ে যাওয়া এবং ধুকতে থাকা পাকিস্তান দলকে টেস্ট জয়ে সাহায্য করা উচিত ছিল।’
টেস্ট ফর্মেট না খেললেও দেশের হয়ে সিমিত ওভারের ক্রিকেট চালিয়ে যাওযার ঘোষণা দেন আমির।
আখতার বলেন, ‘আমি পাকিস্তান দল নির্বাচন কমিটির সদস্য হলে যে সকল খেলোয়াড় টি-২০ খেলতে চায় তাদেরকে মেনে নিতাম না। একটা সময় থাকে যখন আপনার টাকা কামানো দরকার। কিন্তু এখন তোমাকে পাকিস্তানের দরকার। এ বিষয়টি বিবেচনায় নিতে আমি বোর্ডকে অনুরোধ করছি। আমিরের বয়স মাত্র ২৭ এবং তার অবসর থেকেই তার মানসিকতার পরিচায় পাওয়া যায়। আমি মনে করছি, বিষয়টি দেখার জন্য পাকিস্তান প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের জন্য এটাই সময়।’
তিনি আরো বলেন, ‘এ সব বোলার কেবলমাত্র টি-২০ বোলার হতে চায়। এটাই সত্যি। আমির, ওয়াহাব রিয়াজ, হাসান আলী এরা কেবলমাত্র টি-২০ খেলতে চায়। ওয়ানডে খেলাটাও তাদের জন্য অনেক বড় কিছু।’
শ্রীলংকার বিপক্ষে ২০০৯ সালে জুলাই মাচে গল-এ টেস্ট অভিষেক হওয়া আমির ৩০.৪৭ গড়ে ১১৯ উইকেট শিকার করেছেন।
বাসস/১৯১১/স্বব