বাসস দেশ-২৪ : জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবেলায় কাজ করবে জাপান-বাংলাদেশ

337

বাসস দেশ-২৪
জাপান-জলবায়ু-পানিসম্পদ
জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবেলায় কাজ করবে জাপান-বাংলাদেশ
ঢাকা, ৩০ জুন, ২০১৯ (বাসস) : জাপানের পরিবেশ প্রতিমন্ত্রী মিনোরো কিউচি বলেছেন, বাংলাদেশের বদ্বীপ পরিকল্পনা-২১০০-এর আলোকে এসডিজি’র লক্ষ্য অর্জনে একটি সর্বাধুনিক ইনস্টিটিউট গড়ে তোলার লক্ষ্যে বিশেষায়িত জ্ঞান ও অভিজ্ঞতা বিনিময়ের মাধ্যমে একটি কার্যকর পানি ব্যবস্থাপনা সিস্টেম নিশ্চিতে বাংলাদেশ ও জাপান ঘনিষ্টভাবে কাজ করবে। জাপানের প্রতিমন্ত্রী রোববার সচিবালয়ে বাংলাদেশের পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুকের সঙ্গে তার কার্যালয়ে সাক্ষাৎকালে এ কথা বলেন।
এ সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলো হয়, সর্বাধুনিক এ ইনস্টিটিউটের নাম হবে ‘বেঙ্গল ডেল্টা ইন্টারন্যাশনাল হাইড্রলিক রিসার্চ এন্ড ট্রেনিং ইনস্টিটিউট’।
পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক জাপানী প্রতিমন্ত্রীকে পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের গৃহীত বিভিন্ন উদ্্েযাগ সম্পর্কে অবহিত করে বলেন, বাংলাদেশ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুদক্ষ নেতৃত্বে বৈশ্বিক উষ্ণায়ন ও তার প্রভাব মোকাবেলায় নিরলসভাবে কাজ করছে। যেহেতু বাংলাদেশ নদীমার্তৃক দেশ এবং পদ্মা, ব্রহ্মপুত্র ও মেঘনা এবং তাদের উপ ও শাখা নদীর নিম্ন অববাহিকায় তাদের মোহনায় গড়ে ওঠা সবচেয়ে বড় পাললিক সমভূমি, সেহেতু আমাদের জন্য জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবও মারাত্মক হবে। আমরা ইতোমধ্যে এ ধরনের বেশ কিছু দুর্যোগময় পরিস্থিতি মোকাবেলাও করেছি।’ এসব চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় ‘বাংলাদেশ ব-দ্বীপ পরিকল্পনা ২১০০’ শীর্ষক একটি দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, সেই পরিকল্পনা বাস্কবায়নে এক দল দক্ষ জনবল সৃষ্টিতে আন্তর্জাতিক মানের একটি ইনস্টিটিউট গড়ে তোলার কার্যক্রম হাতে নিয়েছে।
জাপানকে বাংলাদেশ ও বাংলাদেশের জনগণের অগ্রগতির ‘পরীক্ষিত অংশীদার’ অভিহিত করে প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক এ সময় বাংলাদেশের পানি সম্পদ উন্নয়নের সংশ্লিষ্ট সকল সেক্টরে জাপানের সহযোগিতা কামনা করেন।
জবাবে জাপানি প্রতিমন্ত্রী জলবায়ু পরিবর্তন প্রশমনে ফলপ্রসূ যে কোনো উদ্যোগে তার দেশ বাংলাদেশের পাশে থাকবে বলে উল্লেখ করেন। জাপানি প্রতিমন্ত্রী টেকসই পানি ব্যবস্থাপনা পদ্ধতি নিশ্চিতকরণে জাপান বাংলাদেশের সঙ্গে কাজ করতে আগ্রহী বলেও উল্লেখ করেন। সাক্ষাতে জাপানের পরিবেশ প্রতিমন্ত্রীর নেতৃত্বে সাত সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল অংশ নেন।
পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মাহমুদুল ইসলাম এবং প্রতিমন্ত্রীর একান্ত সচিব নূর আলম উপস্থিত ছিলেন।
বাসস/সবি/এসআরএইচ/অনুবাদ-এইচএন/২০৩৫/কেএমকে