বাসস ক্রীড়া-১৬ : বেয়ারস্টোর সেঞ্চুরিতে ইংল্যান্ডের সংগ্রহ ৩৩৭ রান

333

বাসস ক্রীড়া-১৬
ক্রিকেট-বিশ্বকাপ
বেয়ারস্টোর সেঞ্চুরিতে ইংল্যান্ডের সংগ্রহ ৩৩৭ রান
বার্মিংহাম, ৩০ জুন, ২০১৯ (বাসস) : সাবেক অধিনায়ক মাইকেল ভনের সঙ্গে তিক্ততাকে পাশে রেখে সেঞ্চুরির দেখা পেয়েছেন ইংলিশ ওপেনার জনি বেয়ারস্টো। বিশ্বকাপে আজ রেববার তার সেঞ্চুরিতে ভর করে ভারতের বিপক্ষে ৩৩৭ রানের বিশাল একটি সংগ্রহ দাঁড় করেছে ইংল্যান্ড। মোহাম্মদ সামির বলে পন্থের হাতে ধরা পড়ার আগে বোয়ারস্টো ১০৯ বলের মোকাবেলায় অস্টম ওয়ানডে সেঞ্চুরি করে ১১১ রানে থামেন। শেষ চারে খেলতে হলে এই ম্যাচে জয়ের কোন বিকল্প নেই ইংলিশদের সামনে।
বার্মিংহামে টস জিতে প্রথমে ব্যাটিং নিয়ে ওপেনিং জুটিতে ১৬০ রানের বিশাল সংগ্রহ এনে দেন দুই স্বাগতিক ওপেনার জেসন রয় ও বেয়ারস্টো। প্রথম উইকেট জুটিতে বিশ্বকাপে এটিই সর্বাধিক সংগ্রহ।
১০ দলের গ্রুপ পর্বের ম্যাচে পরপর দুই ম্যাচে হারের তিক্ততা নিয়ে আজ ‘অবশ্য জয়ের মিশন নিয়ে’ ভারতের বিপক্ষে খেলতে নেমেছিল ইংলিশরা। আগের দুই ম্যাচে শ্রীলংকা ও অস্ট্রেলিয়ার কাছে পরাজিত হয়েছে তারা। এর আগে শুরুতেও পাকিস্তানের কাছে পরাজিত হয়েছে শিরোপা প্রত্যাশি দলটি। সর্বশেষ দুই পরাজয় স্বাগতিক দলের প্রথমবারের মত শিরোপা জয়ের স্বপ্নকেই ম্লান করে দিয়েছে। তবে ইনজুরির কারণে দুই ম্যাচে খেলতে পারেননি জেসন রয়।
আজ মাঠে ফিরেই বিধ্বংসি ব্যাটিংয়ে অবতীর্ণ হন রয়। মোহাম্মদ সামির হাত থেকে ছুটে আসা দ্বিতীয় বলটিকেই সীমানাছাড়া করেন তিনি। পরে মিড অফ দিয়ে ওই ওভারে আরো একটি চার মারেন তিনি।
সাবেক ইংলিশ অধিনায়ক ভনের সঙ্গে টুর্নামেন্ট পূর্ব বাক যুদ্ধে লিপ্ত হওয়া বেয়ারস্টো আজ দুইবার ভাগ্যে সহায়তা পেয়েছেন। আর এই সুযোগটি ভালভাবেই কাজে লাগিয়েছেন ভনের মন্তব্যকে ভুল প্রমান করার মিশনে নামা ওপেনার।
ইংলিশ ওপেনারদের বিধ্বংসি ব্যাটিং রোধ করার জন্য ম্যাচের ষষ্ঠ ওভারে লেগ স্পিনার যুজবেন্দ্রা চাহালকে ডেকে আনেন ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি। কিন্তু তাকেও তুলোধুনো করে বেয়ারস্টো। ওয়ানডে র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষ বোলার জাসপ্রিত বুমরাহর জন্যও দুঃস্বপ্ন হয়ে উঠে ৪১ বলে হাফ সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন রয়।
শেষ পর্যন্ত ভারতীয় শিবিরে স্বস্তি ফিরিয়ে আনেন কুলদীপ যাদব। তার বল উড়িয়ে মারলে রাহুলের পরিবর্তিত হিসেবে ফিল্ডিংয়ে নামা রবিন্দ্র জাদেজা দৌঁড়ে লং অন থেকে ঝাপিয়ে পড়ে তালুবন্দী করেন বল। আউট হবার আগে ৫৭ বলে ৬৬ রান করেন রয়। ইতোমধ্যে প্রথম উইকেট জুটিতে ইংলিশ সংগ্রহশালায় যুক্ত হয় ১৬০ রান।
এরপর জো রুটকে সঙ্গী করে ফের আগ্রাসী ব্যাটিং শুরু করেন বেয়ারস্টো। শেষ পর্যন্ত তাকে থামিয়ে দেন সামি। ৩২তম ওভারে সামির বল তুলে মারতে গিয়ে ডিপ কাভার অঞ্চলে ঋষভ পন্থ’র হাতে ধরা দেন বেয়ারস্টো। এর আগে ৯০ বলে শতক পূর্ণ করেন ইংশিল ওপেনার। ব্যক্তিগত ১১১ রানে তিনি যখন সাজঘরের পথে যাত্রা করেন তখন স্বাগতিক দল পৌছে যায় ২০৫ রানে। ম্যাচে সামির ৫ উইকেট ইংলিশদের আরো বড় সংগ্রহের পথকে বাঁধাগ্রওস্ত করে। ৬৯ রানের বিপরীতে ৫ উইকেট সংগ্রহ করেন সামি। বেন স্টোকসের ৭৯ ও জো রুটের ৪৪ রানে ভর করে শেষ পর্যন্ত নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৭ উইকেটে ৩৩৭ রান সংগ্রহ করে ইংল্যান্ড। বুমরাহ ও কুলদীপ একটি করে উইকেট লাভ করেন।
বাসস/এমএইচসি/২০১৫/স্বব