বাসস বাজেট-৪৪ : মৎস্য ও প্রাণি সম্পদে প্রযুক্তি উদ্ভাবন ও গবেষণা খাতে ২ হাজার ৯৩২ কোটি টাকা বরাদ্দ

407

বাসস বাজেট-৪৪
মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ
মৎস্য ও প্রাণি সম্পদে প্রযুক্তি উদ্ভাবন ও গবেষণা খাতে ২ হাজার ৯৩২ কোটি টাকা বরাদ্দ
ঢাকা, ১৩ জুন, ২০১৯ (বাসস) : আগামী ২০১৯-২০ অর্থ বছরের বাজেটে মৎস্য ও প্রাণি সম্পদে প্রযুক্তি উদ্ভাবন,প্রশিক্ষণ ও গবেষণা বাবদ ২ হাজার ৯৩২ কোটি ৩৩ লাখ ৪৯ হাজার টাকা বরাদ্দ করার প্রস্তাব করা হয়েছে।
অর্থমন্ত্রী আজ বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে আগামী ২০১৯-২০ অর্থ বছরের বাজেট প্রস্তাবনায় একথা জানান।
এরমধ্যে পরিচালন খাতে ১ হাজার ২৯৭ কোটি ৪৩ লাখ ৪৯ হাজার টাকা এবং উন্নয়ন খাতে ১ হাজার ৬৩৪ কোটি ৯০ লাখ টাকা।
তিনি বলেন,খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিতে সরকার জোরালো ব্যবস্থা গ্রহণ করছে।নতুন খাদ্য ও পুষ্টি নিরাপত্তা নীতি প্রণয়নসহ প্রাণিসম্পদ সংশ্লিষ্ট চারটি প্রযুক্তি উদ্ভাবন ও হস্তান্তর,এফএমডি ও পিপিআর রোগ দমনে কার্যকর মডেলের সম্প্রসারণ,প্রাণিখাদ্য সংরক্ষণে ডোল পদ্ধতি সম্প্রসারণ,বিভিন্ন বিষয়ে ৩৫ টি গবেষণা বাস্তবায়ন,তিনটি আঞ্চলিক কেšেদ্র ল্যাবরেটরি স্থাপন এবং প্রশিক্ষণ প্রদানের পরিকল্পনা রয়েছে।
আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেন, মিঠা পানির মাছ উৎপাদনে পৃথিবীতে বাংলাদেশের অবস্থান ৪র্থ স্থানে। বঙ্গোপসাগরে বাংলাদেশের সীমানা নির্ধারিত হওয়ায় সামুদ্রিক মৎস্য সম্পদের উন্নয়নের লক্ষ্যে বর্তমান সরকার একটি প্লান অব অ্যাকশন প্রণয়ন করেছে।
সামুদ্রিক মৎস্য সম্পদের গুরুত্ব বিবেচনা করে এর পরিমাণ বৃদ্ধিতে সরকার চলতি বছরের ৬৫ দিন সমুদ্রে মৎস্য আহরণ বন্ধ ঘোষণা করেছে।তবে,সমুদ্রে মৎস্য আহরণে নিয়োজিত ৪ লাখ ১৫ হাজার জেলেকে ঐ সময়ে ৬৫ কেজি করে চাল খাদ্য সহায়তা হিসেবে দিয়েছে।
উল্লেখ্য,নিরাপদ খাদ্য আইন-২০১৩ চালু করার পাশাপাশি এটি বাস্তবায়নের লক্ষ্যে ৬ টি প্রবিধানমালা এবং ২ টি বিধিমালা গেজেট আকারে প্রকাশ করা হয়েছে।
বাসস/এএসজি/এসএস/২০৪৭/শআ