বাজিস-৫ : চট্টগ্রামে বুদ্ধ পূর্ণিমা উদযাপন

524

বাজিস-৫
চট্টগ্রামে-বুদ্ধ পূর্ণিমা
চট্টগ্রামে বুদ্ধ পূর্ণিমা উদযাপন
চট্টগ্রাম, ১৮ মে, ২০১৯ (বাসস) : ‘অশান্ত বিশ্বে শান্তি বিরাজ করুক’ শ্লোগানে চট্টগ্রামে আজ বুদ্ধ পূর্ণিমা উদযাপন করেছেন বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীরা।
এ উপলক্ষে আজ চট্টগ্রাম শহরে বের করা হয় শান্তি শোভাযাত্রা। ঘোড়ার গাড়ি, পিকআপ, রিক্সা ভ্যানে গৌতম বুদ্ধের প্রতিকৃতি ও ব্যানার ফেস্টুন নিয়ে বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীরা শোভাযাত্রায় অংশ নেন।
শান্তি শোভাযাত্রাটি নগরীর নন্দনকানন ডিসি হিল থেকে লালদিঘীর পাড় হয়ে আন্দরকিল্লা-চেরাগী পাহাড়-জামালখান প্রেসক্লাব ঘুরে বৌদ্ধবিহার প্রাঙ্গণে এসে শেষ হয়।
শনিবার সকাল পৌনে ১০টায় চট্টগ্রামের নন্দনকানন বৌদ্ধ বিহারের সামনে বুদ্ধ পূর্ণিমা উপলক্ষে আয়োজিত শান্তি শোভাযাত্রা উদ্বোধন করেন চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ (সিএমপি) কমিশনার মো. মাহাবুবর রহমান।
পুলিশের বিশেষ শাখার উপকমিশনার মো. আব্দুল ওয়ারিশ খাঁন জানান, বুদ্ধ পূর্ণিমা উপলক্ষে নগরীতে কাতালগঞ্জ, মোগলটুলী, চান্দগাঁও সহ শহরের ৩১টি মন্দিরে অতিরিক্ত আড়াই হাজার পুলিশ মোতায়েন করা হয়। এছাড়া জেলার ১৬টি উপজেলার ২শ’টি বৌদ্ধ মন্দিরেও নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়।
২৫৬৩ বুদ্ধাব্দের এই বুদ্ধ পূর্ণিমা উপলক্ষে বুদ্ধপূজা, ভিক্ষুসংঘকে পি-দান করার পাশাপাশি পঞ্চশীল, অষ্টশীল, সূত্রপাঠ, সূত্রশ্রবণ অনুষ্ঠান হয়েছে চট্টগ্রাম মহানগরী ও জেলার বিহারগুলোতে। দেশ, জাতি ও বিশ্বের সকল প্রাণীর মঙ্গল কামনায় ত্রিপিটক পাঠ ও প্রার্থনায় অংশ নিয়েছেন উপাসকরা।
শোভাযাত্রার নিরাপত্তায় নগর পুলিশের কুইক রেসপন্স টিম, সোয়াত, বোম্ব ডিজপোজাল ইউনিট, নগর গোয়েন্দা পুলিশের বিশেষ টিম, মোবাইল টিম, রিজার্ভ ফোর্স এবং র‌্যাব সদস্যরা দায়িত্ব পালন করেছেন।
বাংলাদেশ বৌদ্ধ সমিতির ব্যবস্থাপনায় বেলুন উড়িয়ে শোভাযাত্রা উদ্বোধনকালে উপস্থিত ছিলেন- বাংলাদেশ বৌদ্ধ সমিতির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান লায়ন আদর্শ কুমার বড়ুয়া, মহাসচিব সুদীপ বড়ুয়া, বুড্ডিস্ট ফাউন্ডেশনের সভাপতি সিদ্ধার্থ বড়ুয়া, উপ-পুলিশ কমিশনার (দক্ষিণ) এস এম মেহেদী হাসান, উপ-পুলিশ কমিশনার (বিশেষ শাখা) আবদুল ওয়ারিশ, বৌদ্ধ সমিতি যুব’র সভাপতি জয়শান্ত বিকাশ বড়ুয়া, সাধারণ সম্পাদক স্বপন কুমার বড়ুয়া প্রমুখ।
এদিকে বিকাল সাড়ে ৩টায় চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন কার্যালয়ের সামনে বেলুন উড়িয়ে বুদ্ধ পূর্ণিমা উপলক্ষে শান্তি শোভাযাত্রা উদ্বোধন করেন চট্টগ্রাম সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। শোভা যাত্রাটি চসিক কার্যালয় থেকে শুরু হয়ে ডিসি হিল বৌদ্ধ বিহার ঘুরে আবার একইস্থানে এসে শেষ হয়।
সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন বলেন, ‘বাংলাদেশ একটি অসাম্প্রদায়িক দেশ। এদেশে সকল ধর্মের মানুষ যথাযোগ্য মর্যাদায় ধর্মীয় উৎসব পালন করতে পারে। আমাদের সকলকে গৌতম বুদ্ধের দর্শন ধারণ করতে হবে। আজকের দিনে এটা হোক আমাদের শিক্ষা।’
চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন বুদ্ধ পূর্ণিমা উদযাপন পরিষদের ব্যবস্থাপনায় শোভাযাত্রায় উপস্থিত ছিলেন পরিষদের সভাপতি ডা. প্রীতি বড়ুয়া, সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী জয়সেন বড়ুয়া, প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এম বোধিমিত্র থেরো, পেশাজীবী পরিষদের সভাপতি প্রকৌশলী অসীম বড়ুয়া প্রমুখ।
এদিকে, কুমিল্লা থেকে বাসস-এর সংবাদদাতা জানিয়েছেন, আজ কুমিল্লায় যথাযোগ্য ধর্মীয় ভাবগম্ভীর মধ্যদিয়ে বৌদ্ধদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব শুভবুদ্ধ পূর্ণিমা উদযাপন করা হয়েছে। দিবসটি উদযাপন উপলক্ষে প্রতিটি বৌদ্ধ বিহারে দিনব্যাপী বিভিন্ন ধর্মীয় অনুষ্ঠানদির আয়োজন করা হয়।
অনুষ্ঠানমালার মধ্যে ছিল ভোরে বিশ্ব শান্তি কামনায় মৈত্রী সূত্র পাঠ, সকালে বৌদ্ধ বিহারে জাতীয় ও ধর্মীয় পতাকা উত্তোলন, পঞ্চশীল ও অষ্টশীল গ্রহণ, সমবেত প্রার্থনা, পিন্ডদান, বিকালে ধর্মীয় আলোচনা, প্রদীপ পূজা ও সমবেত প্রার্থনা।
শুভ বুদ্ধ পূর্ণিমা উপলক্ষে জেলার প্রতিটি বৌদ্ধ বিহারে উপাসক-উপাসিকাসহ সকলে শ্রদ্ধার্ঘ্য নিবেদন করে পরিবার সমাজ ও দেশের সুখ শান্তি সমৃদ্ধি কামনায় প্রার্থনা করেন।
কুমিল্লা সদরের ঠাকুরপাড়াস্থ কনকস্তূপ বৌদ্ধ বিহার, ইপিজেড সার্বজনীন মৈত্রী বৌদ্ধ বিহার, কোটবাড়ীস্থ নবশালবন বিহার, আলীশ্বর শান্তি নিবেকতন বৌদ্ধ বিহার, বরইগাও কনকচৈত্য বৌদ্ধ বিহারসহ জেলার ১৮টি বৌদ্ধ বিহারে ধর্মীয় উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে সুষ্ঠুভাবে শুভ বুদ্ধ পূর্ণিমা উদযাপন করা হয়।
বাসস/জিই/এসকেবি/২১৪২/এমকে