প্রধানমন্ত্রীর ১০টি বিশেষ উদ্যোগ বাস্তবায়নে বাসস-এর সাথে দৈনিক আজাদীর সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর

444

চট্টগ্রাম, মে ৬, ২০১৯ (বাসস) : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দশটি বিশেষ উদ্যোগের কার্যক্রম বাস্তবায়নে গণমাধ্যমের অংশগ্রহণ জোরদার করতে বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা (বাসস) এবং চট্টগ্রাম থেকে প্রকাশিত দৈনিক আজাদী পত্রিকার সাথে এক সমঝোতা স্মারক আজ সোমবার স্বাক্ষরিত হয়েছে।
বাসস-এর পক্ষে ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ ও দৈনিক আজাদীর পক্ষে সম্পাদক এম এ মালেক সমঝোতা স্মারকে স্বাক্ষর করেন। এ উপলক্ষে দৈনিক আজাদী পত্রিকার কার্যালয়ে এক ফোকাস গ্রুপ ডিসকাশন ও সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়। বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা (বাসস) ও দৈনিক আজাদী পত্রিকা যৌথভাবে এ অনুষ্ঠান আয়োজন করে।
বাসস-এর পক্ষে ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ-এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রামের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ কামাল হোসেন, দৈনিক আজাদীর পরিচালনা সম্পাদক ওয়াহিদ মালেক, বাসস-এর সিটি এডিটর মধুসুধন মন্ডল। বাসস-এর বিশেষ সংবাদদাতা ও বাসস পরিচালিত বিশেষ উদ্যোগ ব্র্যান্ডিং কার্যক্রমের ফোকাল পয়েন্ট কর্মকর্তা মাহফুজা জেসমিনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বাসস-এর চট্টগ্রাম ব্যুরো প্রধান ও বিশেষ সংবাদদাতা সমীর কান্তি বড়–য়া, দৈনিক আজাদী’র সহযোগী সম্পাদক রাশেদ রউফ, সহসম্পাদক দিবাকর ঘোষ, খোরশেদ আলম, চীফ রিপোর্টার হাসান আকবর, স্টাফ রিপোর্টার শুকলাল দাশ, সবুর শুভ, ঋত্বিক নয়ন, মোরশেদ তালুকদার, সোহেল রানা, বাসস-এর সিনিয়র রিপোর্টার মিয়া মোহাম্মদ আরিফ, স্টাফ রিপোর্টার মো. জিগারুল ইসলাম, ভ্রাম্যমাণ প্রতিনিধি দেব দুলাল ভৌমিক প্রমুখ।
সভাপতির বক্তব্যে বাসস-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ বলেন, বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর বাংলাদেশের মানুষ স্বপ্ন দেখতে ভুলে গিয়েছিলেন। নতুনভাবে স্বপ্ন দেখতে শিখিয়েছেন জাতির জনকের কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বিশ্বের কাছে আমাদের আত্মমর্যাদাশীল ও আত্মসম্মানবোধ সম্পন্ন জাতি হিসেবে পরিচিত করে তুলছেন। বাংলাদেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রার ধারাবাহিকতা রক্ষা করতে হলে নেতিবাচক রাজনীতি পরিহার করতে হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যাকরার জন্য ২১ বার চেষ্টা করা হয়েছে। সর্বশেষ ২১ আগস্টের গ্রেনেড হামলায় আল্লাহর রহমতে তিনি বেঁচে গেছেন। দেশকে এগিয়ে নিতে বঙ্গবন্ধু কন্যার বিকল্প নেই।
দৈনিক আজাদী সম্পাদক এম এ মালেক প্রধানমন্ত্রীর ১০ ব্রান্ডিং প্রকল্পের সাথে দৈনিক আজাদীকে সম্পৃক্ত করায় বাসসকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, এসব প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে দেশ এগিয়ে যাবে। একমাত্র সাংবাদিকরাই পারেন এসব প্রকল্পের সুফল প্রচারের মাধ্যমে জনগণকে সচেতন করে তুলতে। সাংবাদিকতা মানে নেতিবাচক নয় ইতিবাচক। উন্নয়ন সাংবাদিকতার মাধ্যমেই সরকারের সঙ্গে জনগণের সেতুবন্ধ হিসেবে সংবাদকর্মীরা কাজ করলে দেশ এগিয়ে যাবে।
অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ কামাল হোসেন বলেন, নির্দিষ্ট লক্ষ্যে পৌঁছাতে হলে সমন্বিত উদ্যোগ প্রয়োজন। তথ্য যত বেশি জনগণের কাছে পৌঁছে দেওয়া যাবে ততই জনগণ সচেতন এবং উপকৃত হবে। সরকারের সঙ্গে জনগণের অংশীদারিত্ব বাড়াতে সাংবাদিকেরাই মূল ভূমিকা রাখতে পারেন। তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ উদ্যোগ’ খাত দশ প্রকল্প বাস্তবায়নে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দেয়া হচ্ছে। রূপকল্প-২১ সামনে রেখে এসব প্রকল্পের সফল বাস্তবায়ন হলে দেশের আর্থ-সামাজিক অগ্রগতির ক্ষেত্রে নতুন মাইলফলক রচিত হবে। একই সঙ্গে মধ্যম আয়ের দেশে রূপান্তর হওয়ার স্বপ্নপূরণ হবে এসব প্রকল্পের সফল বাস্তবায়নে। এসব উদ্যোগের মধ্যে রয়েছে-আমার বাড়ি আমার খামার প্রকল্প, সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচী, ঘরে ঘরে বিদ্যুত, কমিউনিটি ক্লিনিক ও মানসিক স্বাস্থ্য, নারীর ক্ষমতায়ন, আশ্রয়ণ প্রকল্প, শিক্ষা সহায়তা কার্যক্রম, ডিজিটাল বাংলাদেশ, পরিবেশ সুরক্ষা ও বিনিয়োগ বিকাশ।