‘জেনোসাইড কর্ণারটি’ বিদেশীদের পরিদর্শনের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া হবে

375

ঢাকা, ২৩ এপ্রিল, ২০১৯ (বাসস) : পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ঐতিহাসিক ভবন সুগন্ধায় স্থাপিত ‘জেনোসাইড কর্ণারটি’ বিদেশীদের পরিদর্শনের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়ার পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে ।
আজ পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের এক সংবাদবিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, রাজধানীর মিন্টুরোডের সুগন্ধায় বিদেশ থেকে আগত রাষ্ট্রপ্রধান, সরকার প্রধান, মন্ত্রী, এমপি ও বিদেশী কূটনীতিকদের পরিদর্শনের এবং সেখানে রক্ষিত পরিদর্শন বইয়ে স্বাক্ষর গ্রহণের ব্যবস্থা করবে।
এছাড়া গণহত্যা বিষয়ে জানার জন্য জেনোসাইড কর্ণারটি পরিদর্শন করতে পারবে দেশের সকল স্কুল, কলেজসহ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্র-ছাত্রীরা ।
পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ. কে. আব্দুল মোমেন বলেন, স্বাধীনতার ৪৮ বছরের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো গণহত্যার শিকার মহান শহীদদের স্মরণে এটি স্থাপন করা হয়েছে। গত ১৮ এপ্রিল তা উদ্বোধন করা হয়েছে। এর মাধ্যমে ১৯৭১ সালের গণহত্যার শিকার ৩০ লাখ মানুষকে স্মরণ করার পাশাপাশি মুক্তিযুদ্ধের ঐতিহাসিক উত্তরাধিকার সংরক্ষণ করা হয়েছে।
পররাষ্ট্র মন্ত্রী বলেন, এই স্থান থেকেই ইয়াহিয়া খান গণহত্যার আদেশ দেন। এই ভবনেই বঙ্গবন্ধু পাকিস্তানি শাসক গোষ্ঠীর সাথে পাকিস্তানের ভবিষ্যত নিয়ে আলোচনা করেন। সেজন্য গণহত্যার স্বীকৃতি আদায় কার্যক্রমের অংশ হিসেবে এই ভবনে জেনোসাইড কর্ণারটি গড়ে তোলা হয়েছে।